কুলিয়ারচরে ঈদে মিলাদুন্নবী পালনে পূর্বপ্রস্তুতিতে বাঁধা
মোঃ আলী সোহেল, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সরকার কর্তৃক নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী ৯অক্টোবর ১২ই রবিউল আওয়াল রোজ রবিবার ঈদে মিলাদুন্নবী অনুষ্ঠিত হবে।
বাংলাদেশে ইসলাম ধর্মের অনেকে আছেন যারা ঈদে মিলাদুন্নবী অনেক বড় উৎসব হিসেবে আনন্দের সাথে পালন করে থাকেন।
জানা যায়, প্রতিবছরই কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ারচর উপজেলার লক্ষ্মীপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত দুলা মিয়ার ছেলে মো. সোলাইমান (৪৮) এর নেতৃত্বে ওই এলাকায় এ উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় এদিনটি পালনের পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে গত শুক্রবার (৭অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে আমজাদ হোসেন (জেনারেল) নামে তার এক অনুসারী লোকজন নিয়ে লক্ষ্মীপুর মধ্যপাড়া গাবতলীর মোড়ে রাস্তার পার্শ্বে ঈদে মিলাদুন্নবী পালন উপলক্ষে একটি ব্যানার লাগাতে গেলে স্থানীয় মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত মো. শামসুল হক মাস্টারের ছেলে সোয়ায়েব আহমেদ সোয়েব (৪০) লোকজন নিয়ে ওখানে ব্যানার লাগাতে বাঁধা নিষেধ দেয়। বাঁধা নিষেধ উপেক্ষা করে তার অনুসারী পার্শ্ববর্তী জাফরাবাদ গ্রামের মো. আবু বক্কর মাস্টারের ছেলে আমজাদ হোসেন (জেনারেল) ওই স্থানে ব্যানার লাগিয়ে আসার পর বাঁধা নিষেধ দেওয়া ব্যক্তিরা ওই স্থানে টানানো ব্যানার ছিড়ে তছনছ করে ঈদে মিলাদুন্নবী পালনে বাঁধাগ্রস্ত করেছে বলে অভিযোগ করে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন মো. সোলাইমান।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মো. সোয়ায়েব আহমেদ সোয়েবের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।