মোঃ আলী সোহেল, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :
কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমার এর ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকীত এবং জাতীয় শোক দিবস-২০২২ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপিত হয়েছে।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার (১৫ আগষ্ট) সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বে-সরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হয়।
এরপর সকাল ৯ ঘটিকায় উপজেলা ভূমি অফিস সংলগ্ন বঙ্গবুন্ধ চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবুন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতিতে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামী লীগ, কুলিয়ারচর থানা পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, পৌরসভা, কুলিয়ারচর প্রেসক্লাব, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, আনসার ভিডিপি, নরসিংদী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কুলিয়ারচর জোনাল অফিস, কুলিয়ারচর সরকারি কলেজ, কুলিয়ারচর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, জনতা ব্যাংক কুলিয়ারচর বাজার শাখা, উপজেলা মহিলা আওয়ামী, পৌর আওয়ামী লীগ, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগ,  যুবলীগ, ছাত্রলীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক ভাবে পুষ্পস্থবক অর্পণ করেন।
পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের নিহত সকল সদস্যদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন কুলিয়ারচর উপজেলা মডেল মসজিদের ইমাম ওবায়দুল হক আঞ্জুম খান।
পুষ্পস্থবক অর্পণ শেষে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে পরিষদের সামনের পুকুর পাড়ে বৃক্ষরোপন করেন। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া ইসলাম লুনা’র সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ মুশফিকুর রহমান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ের উপ-প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. ফজলুর রহমান পটল এর যৌথ সঞ্চলনায় উক্ত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইয়াছির মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া ইসলাম লুনা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মুর্শিদ উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ নূরে আলম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদা খানম মুক্তা, কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আদনান আখতার, থানার ওসি (তদন্ত) মো. লূৎফর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. জিল্লুর রহমান, যুদ্ধকালীন কমান্ডার মো. বজলুর রহমান, কুলিয়ারচর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. হাবিবুর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলাল উদ্দিনসহ সরকারি ও বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।
এরপর বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে যুব ঋণের চেক বিতরণ করা হয়। দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় হতে প্রাপ্ত বরাদ্দের অনুকুলে শিশু খাদ্য বিতরণ করা হয়।
এছাড়া উপজেলা পরিষদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান,  পৌর আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের পক্ষ থেকে পৃথক পৃথক ভাবে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল সহ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন এবং কাঙ্গালী ভোজের আয়োজন করা হয়।