কুড়িগ্রামে পুরুষশূন্য ৯টি গ্রাম,বাড়িছাড়া এসএসসি পরীক্ষার্থীরাও
নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের উলিপুরে গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য ৯টি গ্রাম। বাড়িছাড়া এসএসসি পরীক্ষার্থীরাও। সংসারের উপার্জনক্ষম মানুষ না থাকায় জ্বলছে না চুলা। এরফলে দুশ্চিন্তায় বাড়ির নারী সদস্যরা। আর মামলা থেকে নাম প্রত্যাহারের কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগও রয়েছে একটি চক্রের বিরুদ্ধে। সাম্প্রদায়িক সহিংসতার মামলার পর গ্রামগুলোতে এখন ভুতুড়ে পরিবেশ।
গ্রেফতারের ভয়ে পুরুষ সদস্যরা বাড়িছাড়া। তাই উলিপুরের গুনাইগাছ ও বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের নারীদের কাছে প্রতিটি রাত কাটছে আতঙ্ক নিয়ে।
কুমিল্লায় মণ্ডপকাণ্ডের পর সাম্প্রদায়িক সহিংসতার আগুন জ্বলে এখানেও। পুলিশ বাদী হয়ে ৫টি মামলা দেয়। তাতে ৭৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৭ শতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করা হয়। এরপর থেকেই পুরুষশূন্য নেফড়া, কালুডাঙ্গা, রামপ্রসাদ, কিশোরপুরসহ ৯টি গ্রাম। বন্ধ মসজিদে আজান ও নামাজ, জ্বলছে না বাড়ির চুলা।
কে আসামি, কে না? কখন পুলিশ এসে কাকে ধরে? এসব আতঙ্কে ঘর ছেড়েছে বাড়ির কিশোররাও। তাদের কেউ কেউ আবার এসএসসি পরীক্ষার্থী। আর এসব নিয়ে উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা। অভিযোগ উঠেছে, এই সুযোগটা কাজে লাগাচ্ছে একটি চক্র। তারা মামলা থেকে নাম প্রত্যাহারের কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। নিরীহদের হয়রানি না করার আহ্বান উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন মন্টুর।তবে এসব বিষয়ে মুখ খুলছে না পুলিশ। কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন দায়িত্বশীল কেউই।