চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: গতকাল ১৯ মার্চ শুক্রবার  রাত ০১.১০ ঘটিকার সময় চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাধীন কলেজ রোডস্থ কবরী রোডের দক্ষিণ পার্শ্বে  বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা কর্মীরা
জনগনের এবং যান চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করিয়া রাষ্ট্রের অনিষ্ট সাধন ও অর্ন্তঘাত মূলক কর্মকান্ড করাকালীন আসামী মোঃ শরীফ হাসান(৪৩), পিতা- মৃত আজিজুর রহমান, সাং- গুলসানপাড়া, থানা ও জেলা- চুয়াডাঙ্গা কে  সরকারের বিরুদ্ধে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশের আমির ডাঃ শফিকুর রহমানের লেখা বিতর্কিত বই এবং বিভিন্ন জিহাদি মতাদর্শের বই সহ হাতে নাতে গ্রেফতার করা হয় । আটককৃত আসামির স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অভিযান চালিয়ে পলাতক এ্যাডঃ রুহুল আমিন এর বাসা তল্লাশি করে একই ধরনের বই উদ্ধার করা হয়।  উদ্ধারকৃত ডাঃ শফিকুর রহমানের লেখা বিতর্কিত “মহান স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি উদযাপন দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ডাঃ শফিকুর রহমানের বক্তব্য” শিরোনামে প্রকাশিত বই তে  বঙ্গবন্ধু কে হেয় করা সহ মহান স্বাধীনতার ইতিহাস কে খন্ডিত আকারে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে এবং জনশৃংখলা ভেংগে ফেলার দৃশ্যমান ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে আসামি কে আটক করা হয়। আটককৃত আসামি পৌরসভাধীন গুলশান পাড়ার মোঃ শরীফ সহ পলাতক আসামি এ্যাডঃ রুহুল আমিন, এ্যাডঃ মাসুদ পারভেজ রাসেল সহ অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনের বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতমূলক কার্যকলাপ ও অপতৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে এসআই জাহাঙ্গীর আলম বাদি হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করেছেন।