ধামইরহাটে এক হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ীঘরে হামলা ও লুট পাট

ধামইরহাটে এক হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ীঘরে হামলা ও লুট পাট

নওগাঁ

মাসুদ সরকার,ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর ধামইরহাটে বসতবাড়ী থেকে উচ্ছেদের লক্ষ্যে রাতের বেলায় প্রতিপক্ষেরা হামলা চালিয়েছে এক হিন্দু পরিবারের উপর। হামলা করে ক্ষান্ত না হয়ে বাড়ীর প্রায় ২ লক্ষ ২৬ হাজার টাকার মালামালও লুট করে নিয়ে গেছে দৃর্বুত্তরা। সুষ্টু বিচারের আশায় ধামইরহাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ওই ভুক্তভোগি পরিবার। অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে এব্যাপারে এখনও কাউকে আটক করতে পারেনি থানা পুলিশ।

 

ধামইরহাট থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার ধামইরহাট ইউনিয়নের অন্তর্গত রুপনারায়পুর (নিকেশ্বর) গ্রামের মৃত চিমু বর্মণের ছেলে বুদু বর্মণ (৫২) রুপনারায়ণপুর মৌজার আরএস খতিয়ান ২৪ এবং প্রস্তাবিত খতিয়ান নং ১৬৯৯,দাগ নং ২৮০ এর ৩৫ শতাংশ জমির মধ্যে ১৬ শতাংশ পৈত্তিক ও ক্রয় সূত্রে প্রাপ্ত জমির উপর টিনের তিনটি ঘর নির্মাণ করেন।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১২টার দিকে ওই জমি নিজের দাবী করে ছোট শিবপুর গ্রামের মৃত তছিমদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মুসা (৫০) মোটর সাইকেল,পিকআপ ভ্যান এবং প্রায় শতাধিক লোকজন নিয়ে ঘুমন্ত বুদু বর্মণের পরিবারের উপর হামলা চালায়। দুর্বৃত্তরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বুদু বর্মণ ও তার স্ত্রী শান্তনা রাণী (৪৫) এবং তাদেরকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসা প্রতিবেশিদের উপর অর্তকিত হামলা চালায়। হামলা চালিয়ে ঘরের বেড়া ও ছাউনির ১৪ ব্যান্ডিল ঢেউটিন,একটি বাইসাইকেল,কীটনাশক ম্প্রে মেশিন,কাসার থালাবাসন,গরু বিক্রয়ের নগদ টাকা,দুটি সিলিং ফ্যান,তিনশত ২০ কেজি চাল এবং বাড়ীর কাপড় চোপড় লুট করে পিকআপ গাড়ীতে করে নিয়ে যায়।

এতে তার প্রায় দুই লক্ষ ২৬ হাজার টাকার মালামাল লুট হয়। রাতের মধ্যে পরিবার নিয়ে অন্যত্র চলে না গেলে তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে দুর্বৃত্তরা চলে যায়। গত বুধবার ভুক্তভোগি পরিবারের পক্ষ থেকে বুদু বর্মণ বাদী হয়ে ধামইরহাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম মুসা মুঠোফোনে হিন্দু পরিবারের বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনার সাথে তার নিজের বা তার কোন লোকজনের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন,তার বাবা মৃত তছিমদ্দিন ১৯৭৫ সালে ওই জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করতে থাকেন। গত তিন-চার দিন আগে হঠাৎ করে ওই জমিতে একটি পরিবার টিন দিয়ে বাড়ী তৈরি করে। ঘটনাস্থল থেকে তার বাড়ীর দূরত্ব প্রায় তিন কিলোমিটার।

 

ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.আব্দুল মমিন বলেন,অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ভুক্তভোগির পরিবারের অভিযোগটি মামলা আকারে গ্রহণ করা হয়েছে। দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.