মিরসরাইয়ে স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় যুবকের কারাদণ্ড
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি মিরসরাইয়ে স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় রিপন সাহা (৩৫) নামে এক যুবককে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) তাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।
এর আগে মিরসরাই সদরের একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় রিপন সাহা নামের ওই যুবক ফারুকিয়া মাদরাসা এলাকায় নির্জন সড়কে একা পেয়ে তার শ্লীলতাহানি করেন। এসময় কিশোরী চিৎকার করলে তিনি পালিয়ে যান। পরে ওই ছাত্রীর অভিভাবক বিষয়টি পুলিশকে জানান।
পরবর্তীতে ওই সড়কে থাকা সিসি ক্যামেরা পর্যালোচনা করলে শ্লীলতাহানির সত্যতা মেলে এবং তাকে আটকের পর ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করার পর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে রিপন সাহাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা জরিমানার আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রিপন সাহা মিরসরাই সদর পোস্ট অফিসের সামনে চটপটি ও ফুচকা বিক্রি করে।
মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কবির হোসেন জানান, ফারুকিয়া মাদ্রাসা সড়কে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরা বিশ্লেষণ করে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় আসামি রিপনকে গ্রেফতার করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা দেওয়ার পর তাকে হাজতে প্রেরণ করা হয়।
উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মিজানুর রহমান জানান, ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত রিপন সাহাকে দন্ডবিধি অনুযায়ী এক মাসের সাজা (কারাদণ্ড) দেওয়া হয়েছে।